logo
শিরোনাম

পণ্য আর ক্রেতাই বাণিজ্য মেলার প্রাণ


পণ্য আর ক্রেতাই বাণিজ্য মেলার প্রাণ

হাজারো পণ্যের পসরা নিয়ে শুরু হয়েছে ২৩তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা। এ মেলার মূল লক্ষ্য পণ্যের প্রসার ।তবে এ মেলায় বিক্রিও কম হয় না । পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বছর ধরে অপেক্ষা করেন এই ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার। মেলার অপেক্ষা থাকে ক্রেতাদেরও। পণ্য আর ক্রেতাই এ মেলার প্রাণ। পণ্যের টানে ক্রেতা আসেন আর ক্রেতাদের সঙ্গে আসে আনন্দ।

 

 মেলায় অংশ নিয়ে দর্শনার্থীরা প্রাণের উচ্ছ্বাসে মেতে উঠছেন। আর পণ্যের বাজার রূপ নিয়েছে আনন্দবাজারে।

 

 

মেলার শুরুর দিন থেকে ভিড়তে থাকেন ক্রেতারা। তাদের অনেকে দল বেধেও আসেন মেলায়। দর্শনার্থীদের অনেকেই কোনো কেনাকাটা না করলেও টিকিট কেটে মেলায় আসেন শুধুই আনন্দ খুঁজতে। লাখো প্রাণে প্রাণ মিলিয়ে প্রকাশ পায় প্রাণের উচ্ছ্বাস।

 

মেলায় আসা ক্রেতারা যাতে সহসাই আনন্দ খুঁজে পান, তার চেষ্টা থাকে আয়োজক ও অংশ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে। তাই মেলার নকশায় প্রকাশ পায় বিশেষ নান্দনিকতা, স্টল-প্যাভিলিয়ন সাজানো হয় দারুণ সব নকশায়।

 

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর আদলে এবার সাজানো হয়েছে মেলার মূল ফটক।  উন্নয়ন আর ঐতিহ্যের প্রতিচ্ছবি এ গেটই মন কাড়ছে আগতদের। মেলার এ গেটের সামনে  ছবি তোলার হিড়িক পড়ছে সকাল-সন্ধ্যা। যেন উন্নয়নের সাক্ষী হতেই সেলফি তোলার এ প্রতিযোগিতা।

 

শিশুদের জন্যও রয়েছে আনন্দমেলা। প্রায় নিরিবিলিতে বেশখানিক জায়গা নিয়ে করা হয়েছে শিশু কর্নার। এখানে শিশুরা মত্ত নানা রকম খেলায়। আনন্দ মিলছে ফুড কর্নারগুলোতেও।

 

মেলায় ঘুরতে আসা আকলিমা আক্তার দৈনিক প্রজন্ম ডটকমকে বলেন, ভালই লাগছে মেলায় এসে। এখন তো চাইলেই রাস্তায় বেড়িয়ে আনন্দ করা যায় না। যানজটের শহরে যাবো কোথায়?’ প্রতি বছর বছর ধরে বাণিজ্য মেলা আর বইমেলার অপেক্ষায় থাকি। এদুই মেলায় শুধু কেনাকাটা করার জন্য সবাই আসে না। মজা করার জন্যও অনেকে আসে।

 

 

তবে বিক্রেতারা জানালেন ভিন্ন কথা, বিক্রি তেমন বাড়েনি। ছুটির দিনে বিক্রি একটু ভালো ছিল। কিন্তু আজকে বিক্রি নেই বল্লেই চলে। এখন দেখি সামনে কি হয়। এখনো তো অনেক সময় আছে।

 

গত ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা চলবে ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকছে। প্রবেশ ফি প্রতিজন ৩০ টাকা। ছোটদের জন্য ২০ টাকা

 

মন্তব্য

উপর