রিয়ালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে বার্সেলোনার জয়


স্পোর্টস ডেস্ক, দৈনিক প্রজন্ম ডটকম
প্রকাশিত: রাত ১০:২২, ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭, শনিবার আপডেট: সকাল ১০:১৭, ২১ জানুয়ারী ২০১৮, রবিবার







রিয়ালকে ৩-০ গোলে হারিয়ে বার্সেলোনার জয়

চলতি মৌসুমে লা লিগার প্রথম এল ক্লাসিকোতে রিয়াল মাদ্রিদকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে শনিবার ৩-০ গোলে জিতেছে আর্নেস্তো ভালভার্দের দল।চলতি মৌসুমে লা লিগার প্রথম এল ক্লাসিকোতে রিয়াল মাদ্রিদকে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা।

 

ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার হয়েছেন। পেয়েছেন পঞ্চম ব্যালন ডি’অর খেতাব। এছাড়া রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে একাধিক ট্রফিও জিতেছেন। কিন্তু বছরের শেষটা তার ভাল হল না! ২০১৭-র শেষ এল ক্লাসিকোতে চির প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির কাছে হারতেই হল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে, ঘরের মাঠে। সেই সঙ্গে তাঁর দলও লা লিগা জয়ের দৌড়ে শীর্ষস্থানে থাকা বার্সেলোনার থেকে ১৫ পয়েন্টে পিছিয়ে গেল। সান্টিয়াগো বার্নাবেউ, যা কিনা রিয়ালের ঘরের মাঠ, সেখানেই বার্সার কাছে ৩-০ গোলে হারলেন রোনালদোরা। বার্সার হয়ে একটি করে গোল সুয়ারেজ, মেসি এবং ভিদালের।

 

ক্লাসিকোতে দুর্দান্ত জয়ে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে রিয়াল মাদ্রিদের থেকে ১৪ পয়েন্ট এগিয়ে গেল বার্সেলোনা। গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধেই রিয়ালের জালে তিনবার বল জড়ায় কাতালানরা। ৫৪ মিনিটে গোলের শুরুটা করেন লুইস সুয়ারেজ। ১০ মিনিট পরই পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লিওনেল মেসি। আর যোগ করা সময়ে অ্যালেক্স ভিদালের গোলে স্কোরলাইন হয়ে যায় ৩-০। বার্নাব্যুতে রিয়ালের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো টানা তিনটি লিগ ম্যাচ জিতল বার্সেলোনা।

 

 প্রথমার্ধে বেশ চনমনেই দেখিয়েছিল পর্তুগিজ মহাতারকাকে। উলটোদিকে, মেসি যেন ছিলেন কিছুটা অন্তরালে। কিন্তু গোল করার লোকের অভাব এবং সুযোগ নষ্টের কারণে ভাল খেলেও এগিয়ে যেতে পারেনি লস ব্লাঙ্কোসরা। অপরদিকে, বেশ কয়েকবার গোল করার সুযোগ তৈরি করেছিলেন ইনিয়েস্তা-সুয়ারেজরা। কিন্তু নাভাস দলের পতন রোধ করেন। প্রথমার্ধের খেলা তাই গোলশূন্যভাবেই শেষ হয়।

 

দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য খোলস ছেড়ে বেরোয় বার্সেলোনা। একের পর এক আক্রমণ তুলে আনে কাটালনসরা। আর প্রত্যেকটি আক্রমণই ছিল একেবারে মাপা। ৫৪ মিনিটে যার ফসল পায় তাঁরা। রিয়াল রক্ষণের ভুলে বল পেয়ে যান একেবারে ফাঁকায় দাঁড়ানো সুয়ারেজ। আর সেখান থেকে গোল করতে কোনও ভুলই করেননি তিনি। এরপর ৬২ মিনিটে আর একটি আক্রমণ থেকে দ্বিতীয় গোল পায় বার্সা। একটি গোলমুখী শট সরাসরি হাত দিয়ে ঠেকান রিয়ালের কার্ভাজাল। রেফারি তাঁকে লাল কার্ড দেখানোর পাশাপাশি পেনাল্টি দেন বার্সাকে। যা থেকে গোল করতে ভুল করেননি মেসি। এরপর দশজনের রিয়ালকে আরও লজ্জায় পড়ার হাত থেকে বাঁচান কেলর নাভাস। তবে খেলা শেষের দশ মিনিট আগে গোল শোধের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে রিয়াল। কিন্তু এ সময় ব়্যামোস, রোনাল্ডোরা একের পর এক সহজ সুযোগ নষ্ট করতে থাকেন।

 

এছাড়া গোল বারের নিচে দুরন্ত পারফর্ম করেন বার্সা গোলরক্ষক স্টের টেগান। তিনি একাই দু’তিনটি নিশ্চিত গোল বাঁচান। এছাড়া রিয়ালের দু’টি পেনাল্টির আবেদনও বাতিল করেন রেফারি। আর খেলা শেষের অন্তিম মুহূর্তে পালটা আক্রমণে এসে মেসির পাস থেকে গোল করে রিয়ালের কফিনে শেষ পেরেকটি পোঁতেন ভিদাল।


What is on your mind?

You have reached the limit

user profile image
Ryan Haywood made a post.
1 minute ago

Bootdey is a gallery of free snippets resources templates and utilities for bootstrap css hmtl js framework. Codes for developers and web designers

user profile image
Ryan Haywood made a post.
1 minute ago

Bootdey is a gallery of free snippets resources templates and utilities for bootstrap css hmtl js framework. Codes for developers and web designers