এই মাত্র পাওয়া

সর্ব শেষ সংবাদ

বায়ার্নকে উড়িয়ে দিয়ে পিএসজির জয় এনে দিল নেইমার–কাভানির

সুলায়মান শিমুল, ডেস্ক এডিটর, দৈনিক প্রজন্ম ডটকম

প্রকাশিত: সকাল ০৬:০৫, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭, বৃহঃস্পতিবার | আপডেট: রাত ০১:০৭, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, শনিবার
বায়ার্নকে উড়িয়ে দিয়ে পিএসজির জয় এনে দিল নেইমার–কাভানির

অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন যারা, সেই তারাই রাঙালেন বুধবার রাতের পার্ক দে প্রিন্সেস। লিওঁর বিপক্ষে ফ্রি কিক নিয়ে এদিনসন কাভানির সঙ্গে বল কাড়াকাড়ি করেছিলেন দানি আলভেস। ওই কাভানির সঙ্গেই আবার পেনাল্টি কিক নিয়ে ঝামেলায় জড়িয়েছিলেন নেইমার। চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে গোল পেলেন তারা তিনজনই। যাতে প্যারিসে বিধ্বস্ত হলো বায়ার্ন মিউনিখ। 

 

বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের মাঠে জার্মান ক্লাবটিকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে উনাই এমেরির দল। দানি আলভেসের গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন কাভানি। দ্বিতীয়ার্ধে তৃতীয় গোলটি করেন নেইমার।

 

শুরুর ধাক্কা কাটিয়ে উঠার কম চেষ্টা করেনি বায়ার্ন। কিন্তু পিএসজির জমাট রক্ষণ ভাঙতে পারছিল না কিছুতেই। বেশ কয়েকটি সুযোগও তৈরি করেছিল তারা। কিন্তু ফরাসি ক্লাবটির গোলরক্ষক আরেওলার দুর্দান্ত সেভে গোলের দেখা আর পাচ্ছিল না। জাবি মার্তিনেসের একটি শট যেভাবে ঠেকেয়েছিলেন পিএসজি গোলরক্ষক, সেটা ছিল এক কথায় দেখার মতো।

 

১৯তম মিনিটে সমতায় ফিরতে পারতো বায়ার্ন। কিন্তু ডি-বক্সের বাইরে থেকে হাভি মার্তিনেসের বিদ্যুৎ গতির শট ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক আলফুঁস আরিওলা।

 

 

 

আক্রমণের পর আক্রমণ চালানো স্বাগতিকরা ৩১ মিনিটে পেয়ে যায় দ্বিতীয় গোলের দেখাও। এবার স্কোরশিটে নাম তোলেন কাভানি। আলভেসের বুদ্ধিদীপ্ত পাস বক্সের ভেতর ধরে ব্যাকপাস করেছিলেন কাইলিয়ান এমবাপে। বক্সের সামান্য বাইরে থেকে বুলেট গতির শটে বল জালে জড়ান উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার।

 

৬৩তম মিনিটে জয় নিশ্চিত করে ফেলেন নেইমার। মাঝমাঠের অনেক আগে থেকে বল পায়ে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ছুটে ডি-বক্সে এমবাপেকে পাস দেন আলভেস। আর ফরাসি তরুণ ফরোয়ার্ড দুজনের মধ্যে দিয়ে এগিয়ে বল বাড়ান গোলমুখে, যা এক ডিফেন্ডারে পায়ে লাগার পর পেয়ে যান নেইমার। সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেননি বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

 

অগাস্টের শুরুতে রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে প্যারিসে পাড়ি জমানো নেইমার পিএসজির হয়ে এই নিয়ে ছয়টি গোল করলেন। সমান সংখ্যক গোল করিয়েছেনও তিনি।

টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষেই আছে পিএসজি। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে বায়ার্ন মিউনিখ।

অন্য ম্যাচে বেলজিয়ামের অ্যান্ডারলেখটকে ৩-০ গোলে হারানো স্কটল্যান্ডের ক্লাব সেল্টিক সমান ৩ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

 

 

 

‘এ’ গ্রুপে জয়ের ধারা ধরে রেখেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। রোমেলু লুকাকুর জোড়া গোলে সিএসকেএ মস্কোর মাঠে ৪-১ গোলে জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে জোসে মরিনিয়োর দল।

গ্রুপের অন্য ম্যাচে বেনফিকাকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া সুইজারল্যান্ডের বাসেল ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে মস্কো।

 

‘সি’ গ্রুপে আতলেতিকো মাদ্রিদের মাঠে দারুণ এক জয় পেয়েছে চেলসি। প্রথমার্ধে অঁতোয়ান গ্রিজমানের গোলে পিছিয়ে পড়ার পর আলভারো মোরাতা সমতা ফেরান। আর শেষ মুহূর্তে মিচি বাতসুয়াইয়ের গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে প্রিমিয়ার লিগের চ্যাম্পিয়নরা। দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আন্তোনিও কোন্তের দল।

 

‘ডি’ গ্রুপে আত্মঘাতী গোলের সুবাদে পর্তুগালের স্পোর্তিং লিসবনকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা।

 

অন্য ম্যাচে কারাবাখকে ২-১ গোলে হারানো ইতালির ক্লাব রোমা ৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। আতলেতিকোর পয়েন্ট ১। কারাবাখের পয়েন্ট শূন্য।

অগাস্টের শুরুতে রেকর্ড ট্রান্সফার ফিতে প্যারিসে পাড়ি জমানো নেইমার পিএসজির হয়ে এই নিয়ে ছয়টি গোল করলেন। সমান সংখ্যক গোল করিয়েছেনও তিনি।

টানা দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষেই আছে পিএসজি। ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে বায়ার্ন মিউনিখ।

অন্য ম্যাচে বেলজিয়ামের অ্যান্ডারলেখটকে ৩-০ গোলে হারানো স্কটল্যান্ডের ক্লাব সেল্টিক সমান ৩ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে।

‘ডি’ গ্রুপে আত্মঘাতী গোলের সুবাদে পর্তুগালের স্পোর্তিং লিসবনকে ১-০ গোলে হারিয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা।

 

ফুটবল এর আরও খবর