logo
শিরোনাম

না ফেরার দেশে অভিনেতা-নির্মাতা সিরাজ হায়দার


না ফেরার দেশে অভিনেতা-নির্মাতা সিরাজ হায়দার

দেশের প্রখ্যাত অভিনেতা ও পরিচালক সিরাজ হায়দার মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বৃহস্পতিবার ভোর ৬টার দিকে রাজধানীর কল্যাণপুরে নিজ বাসায় মারা যান তিনি।


সিরাজ হায়দারের বড় ছেলে নাট্য নির্মাতা লেলিন হায়দার বলেন, আজ ভোর ৬টা ১৫ মিনিটের দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে বাবা মারা যান। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন।

 

সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা জানাতে আজ বাদ জোহর এফডিসিতে তার মরদেহ আনা হবে।

 

সিরাজ হায়দার অভিনয়ের সাথে জড়িত ছিলেন পঞ্চান্ন বছরের বেশী সময় ধরে। ১৯৬২ সালে নবম শ্রেণীর ছাত্রকালীন সময়ে ১৪ আগস্ট পূর্ব পাকিস্তান জাতীয় দিবসে টিপু সুলতান নাটকে করিম শাহ চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনয়ে পথচলা শুরু করেছিলেন।

 

এই দীর্ঘ সময়ে তিনি অভিনয় করেছেন যাত্রা, মঞ্চ, রেডিও, টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্রে। মুক্তিযুদ্ধের পর চলচ্চিত্র পরিচালক আবদুল্লাহ আল মামুনের সহকারী হিসেবে জল্লাদের দরবার নামক চলচ্চিত্রে কাজ শুরু করেন। প্রথম অভিনীত চলচ্চিত্রের নাম সুখের সংসার। নারায়ন ঘোষ মিতা পরিচালিত এ চলচ্চিত্রে সিরাজ হায়দার খলনায়ক চরিত্রে অভিনয় করেন।

 

মঞ্চ নাটক নির্দেশনা দিয়েছেন মাত্র উনিশ বছর বয়সে। ১৯৭৬ সালে তিনি রঙ্গনা নাট্যগোষ্ঠী প্রতিষ্ঠা করেন এবং অনেকগুলো নাটকের নির্দেশনা দেন। সিরাজ হায়দার দুটি চলচ্চিত্র পরিচালনাও করেছেন।

 

ব্যক্তিগত জীবনে সিরাজ হায়দারের স্ত্রী মিনা হায়দারও একজন অভিনেত্রী। তাদের পুত্র লেনিন হায়দার একজন নাট্য পরিচালক।

 

তিনি মঞ্চেও সমানভাবে অভিনয় করেছেন। মঞ্চ নাটক নির্দেশনা দিয়েছেন মাত্র উনিশ বছর বয়সে। ১৯৭৬ সালে তিনি রঙ্গনা নাট্যগোষ্ঠী প্রতিষ্ঠা করেন এবং অনেকগুলো নাটকের নির্দেশনা দেন।

মন্তব্য

উপর