logo
শিরোনাম

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পাটের গুরুত্ব অপরিসীম- কৃষিমন্ত্রী


বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পাটের গুরুত্ব অপরিসীম- কৃষিমন্ত্রী

কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পাটের গুরুত্ব অপরিসীম। এই কৃষি প্রধান দেশে ধানের পরে পাটের স্থান, তাই পাট প্রধান অর্থকরী ফসল। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিকূলতা এবং স্বল্পমূল্যের সিনথেটিক দ্রব্যের ব্যাপক আবির্ভাবের কারণে প্রাকৃতিক তন্তু পাট তার শ্রেষ্ঠত্বের গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায় হারাতে থাকে।

মন্ত্রী আজ ঢাকায় বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিজেআরসি)এর অডিটোরিয়ামে 'বার্ষিক পাট গবেষণা পর্যালোচনা কর্মশালা-২০১৮' অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
কৃষিমন্ত্রী আরো বলেন, অতি সম্প্রতি দেশীয় বিজ্ঞানীগণ জুট জেনম সিকুয়েন্স অর্থাৎ পাটের জীবনরহস্য উৎঘাটন করতে সক্ষম হয়েছে। ফলে এখন উন্নত পাট উৎপাদন এবং পাটের বহুমূখী ব্যবহারের পথ সুগম হবে। বাংলাদেশ আবার পাটের হারানো গৌরব ফিরে পাবেন বলে মন্ত্রী উল্লেখ করেন।

পাট একটি কৃষিপণ্য আবার একটি শিল্পপণ্য উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, পাটের উল্লেখযোগ্য শিল্পপণ্যের মধ্যে পাটের চিকন সূতা, অগ্নিরোধী পাটজাত বস্ত্র, পাটজাত শোষক তুলা, জুট-জিওটেক্সটাইল, স্থানান্তরযোগ্য সেচ নালা, জুট ফেল্ট/ফ্লোর ম্যাট ও সতরঞ্জি, গ্রে ফেব্রিক্স, পলিয়েস্টার ফেব্রিক্স, জেুট ডেনিম ইত্যাদি অন্যতম। উপস্থিত বিজ্ঞানীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী বলেন, অতীত বর্তমান ও ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে গবেষণা ও পরিকল্পনা করতে হবে।

মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ্ সভাপতিত্বে উক্ত কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য

উপর