logo
শিরোনাম

মৃত ভেবে ফেলে রাখা শাহাব উদ্দিন এখন মন্ত্রী


মৃত ভেবে ফেলে রাখা শাহাব উদ্দিন এখন মন্ত্রী

টানা তিনবার ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ছিলেন। এরপর সাংসদ ও জাতীয় সংসদের হুইপ। এখন বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। তিনি হলেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলা) আসনে বিজয়ী আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সাংসদ মো. শাহাব উদ্দিন।

গত ৩০ ডিসেম্বরের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ী) আসন থেকে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছেন। দশম সংসদের সরকারদলীয় হুইপের দায়িত্ব পালন করেন। তাঁর মন্ত্রী হওয়ার খবরে এলাকায় বইছে আনন্দের বন্যা। এর আগে বড়লেখার ইতিহাসে কেউ পূর্ণমন্ত্রী হতে পারেননি।

আজ সোমবার (৭ জানুয়ারি) নতুন মন্ত্রিসভায় শপথ নিবেন তিনি। এর আগে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে গতকাল রবিবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে শাহাব উদ্দিনকে মন্ত্রী হিসেবে শপথ নেওয়ার জন্য ফোন করা হয়েছিল।

১৯৮৪ সালে প্রথম মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। ওই নির্বাচনের পর রাজনীতির মাঠে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। একটানা তিনবার ইউপি চেয়ারম্যান ছিলেন তিনি। চেয়ারম্যান থাকা অবস্থায় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের হামলায় মৃত্যুর খুব কাছ থেকে ফিরে আসেন তিনি। শত্রুরা তাকে মৃত ভেবে ফেলে যায়। সে ঘটনা নিয়ে সিলেটের নির্বাচনী জনসভায় স্মৃতিচারণ করেন শেখ হাসিনা।

২০০৮ সালের নবম ও ২০১৪ সালের দশম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত হয়ে তিনবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় তৃণমূল পর্যায় থেকে দাবি ওঠে তাকে মন্ত্রী করার। এলাকার মানুষের প্রতি সম্মান দেখিয়ে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদায় শাহাব উদ্দিনকে হুইপ করেন প্রধানমন্ত্রী। এবার নির্বাচনের প্রচারণায় পাশ করলেই পূর্ণ মন্ত্রী এমনটি গুরুত্বের সাথে স্থান পায়।

চারবারের নির্বাচিত সৎ, সজ্জন এই সংসদ সদস্যকে এবার পূর্ণমন্ত্রী করায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশে কৃপণতা করেননি তার নির্বাচনী এলাকার লোকজনসহ দলীয় নেতাকর্মীরা।

বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র আবুল ইমাম কামরান চৌধুরী ও জুড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক বদরুল হোসেন ও যুব নেতা রিংকু দাস একই সুরে মো. শাহাব উদ্দিনকে মন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলাবাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানান।

বিজ্ঞ রাজনীতিক, জনপ্রতিনিধি, সৎ ও সজ্জন ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সিঁড়ি বেয়ে ওপরে ওঠা মো. শাহাব উদ্দিন এবার মন্ত্রীর আসনে বসতে যাচ্ছেন। তিনি বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন। এর আগে শাহাব উদ্দিন দশম সংসদের সরকার দলীয় হুইপের দায়িত্ব পালন করেন।

এক প্রতিক্রিয়ায় শাহাব উদ্দিন এমপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ ও তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, ‘এ পাওয়া আমার একার নয়, বড়লেখা-জুড়ীবাসী তথা মৌলভীবাজারবাসীর। তিনি তার ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালনে সবার সহযোগিতা কামনা করেন।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মৌলভীবাজার-১ (বড়লেখা-জুড়ী) আসন থেকে আওয়ামী লীগ প্রাথী মো. শাহাব উদ্দিন নৌকা প্রতীকে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৬৭৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির নাসির উদ্দিন আহমেদ মিঠু ধানের শীষ প্রতীকে পান ৬৫ হাজার ৮১৪ ভোট।

মন্তব্য

উপর