logo
শিরোনাম

ট্রিলিয়ন ডলারের খনিজ সম্পদের দেশ রাশিয়া


ট্রিলিয়ন ডলারের খনিজ সম্পদের দেশ রাশিয়া

ট্রিলিয়ন ডলারের খনিজ সম্পদে সমৃদ্ধ দেশ রাশিয়া। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন যা আজ রাশিয়া নামে পরিচিত এই দেশ বিশ্বের বিরল খনিজ পদার্থের দ্বিতীয় বৃহত্তম রফতানিকারক। দেশটির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বের ১২তম শীর্ষ অর্থনীতির এ দেশের মোট প্রাকৃতিক সম্পদের মূল্যমান ৭৫ ট্রিলিয়ন ডলার। বিশ্বের খনি শিল্পের তিন ভাগই আসে রাশিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে।

দেশটির পূর্বাঞ্চল আর সাইবেরিয়ায় খনিজ আছে সবচেয়ে বেশি। দেশটির উরাল পর্বতে কয়লা, তেল, গ্যাসের খনি আছে। তেল ও গ্যাস খনন শিল্প দেশটির জিডিপি প্রবৃদ্ধি আর রফতানিতে বিশেষ ভূমিকা রাখে। বিশ্বের পঞ্চম কয়লা উত্তোলক দেশ রাশিয়া, দেশটিতে মজুদ আছে ১৭ হাজার ৫শ' কোটি টন কয়লা। বেশির ভাগ খনিই সাইবেরিয়া আর উরাল পর্বতে আছে।

 পূর্ব ইউরোপ আর উত্তর এশিয়ার মাঝামাঝিতে অবস্থিত বিশ্বের বৃহত্তম দেশ রাশিয়া। এখানে প্রচুর পরিমাণে জ্বালানি তেল, প্রাকৃতিক গ্যাস, কপার, ডায়মন্ড, লেড, জিঙ্ক, স্বর্ণ, রূপা আর পারদের মতো মূল্যবান খনিজ আছে। প্লাটিনাম, স্বর্ণ, ডায়মন্ড আর লৌহ আকরিকের একটি শীর্ষ প্রস্ততকারক দেশ রাশিয়া। বিশ্বের শীর্ষ নিকেল ও প্লাটিনাম উত্তোলক প্রতিষ্ঠান রাশিয়ার নরিলস্ক নিকেল। ২০১৭ সালে খনিজ সম্পদ আহরণের পরিমাণ ছিলো ৮১ মেট্রিক টন। নরিলস্ক নিকেল রাশিয়া ছাড়াও অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও ফিনল্যান্ডে কারখানা পরিচালনা করে। যেখানে কোম্পানিটির বার্ষিক আয় ১ হাজার কোটি ডলার। বিশ্বের মোট হীরা খননের বেশিরভাগই করে রাশিয়ার আলরোসা কোম্পানি।

দেশটির কাঠশিল্পের বার্ষিক মুনাফা ২ হাজার কোটি ডলার। বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম মৎস্যশিল্প রাশিয়ার। দেশটির পরিসংখ্যান অনুযায়ী, রাশিয়ার মোট প্রাকৃতিক সম্পদের মূল্যমান ৭৫ ট্রিলিয়ন ডলার। যেখানে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫ ট্রিলিয়ন ডলার এবং চীনের ২৩ ট্রিলিয়ন ডলার। রাশিয়ার প্রাকৃতিক সম্পদের প্রাচুর্য থাকায় এ দেশকে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে দমিয়ে রাখা যাবে না বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

মন্তব্য

উপর