logo
শিরোনাম

ফের রাজধানীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভে পোশাক শ্রমিকরা


ফের রাজধানীতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভে পোশাক শ্রমিকরা

মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে সাভার ও আশুলিয়ায় টানা ৬ষ্ঠ দিনের মতো বিক্ষোভ করেছে তৈরি পোশাক শ্রমিকরা। আজ সকাল থেকেই রাস্তায় নামে তারা। সকালে আশুলিয়ার জামগড়ার ছয়তলা এলাকায় শ্রমিকরা সড়ক অবরোধ করে ভাঙচুরের চেষ্টা করলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। এসময় আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত হয়েছে ২৫ জন।

আজ শনিবার সকাল ১০টার পর থেকে মিরপুর এলাকার দারুস সালাম, টেকনিক্যাল, বাংলা কলেজের সামনের সড়ক, শেওড়া পাড়া, মিরপুর-১৪ নম্বর এলাকায় সড়কে জড়ো হয়ে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করছে। এতে ওইসব এলাকার সড়কগুলোতে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ভাষানটেক থানার ওসি মুন্সি সাব্বির আহমেদ জানান, ভাষানটেক এলাকার তামান্না গার্মেন্টসের শ্রমিকরা সকালে সড়ক অবরোধ করে। পরে তারা বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় সড়কে যান চলাচল বন্ধু হয়ে যায়। শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছে।

মিরপুর থানার ওসি দাদন ফকির বলেন, শ্রমিকদের শান্ত করতে চেষ্টা করা হচ্ছে। 

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে এই বিক্ষোভ চলছে। ন্যূনতম মজুরির দাবিতে বৃহস্পতিবারও বিক্ষোভ করেছেন তাঁরা। এর আগে আশুলিয়ার কাঠগড়া, কুটুরিয়া, জামগড়াসহ কয়েকটি এলাকায় রাস্তায় নামেন পোশাকশ্রমিকেরা।

এ সময় পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের সংঘর্ষে দুই পক্ষের ২০ জনের মতো আহত হন। শ্রমিক বিক্ষোভের কারণে আশুলিয়া এলাকায় অর্ধশত কারখানা বন্ধ ছিল। গত ৯ জানুয়ারি বুধবার শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে প্রায় রণক্ষেত্রে পরিণত হয় সাভার।

মজুরি নিয়ে শ্রমিকদের চলমান অসন্তোষও থামছে না। প্রতিদিনই নতুন নতুন এলাকায় অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ছে। সমস্যা সমাধানে মালিক-শ্রমিক ও সরকারের ত্রিপক্ষীয় কমিটি হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৬ দিন ধরে বেতন বৈষম্যের প্রতিবাদে রাজধানী ও আশপাশের এলাকায় টানা বিক্ষোভ করছেন পোশাক শ্রমিকরা।

মন্তব্য

উপর