logo
শিরোনাম

সাবধান, সাবধান, সাবধান: অর্থমন্ত্রী


সাবধান, সাবধান, সাবধান: অর্থমন্ত্রী

ঋণ কেলেঙ্কারি চি‌হ্নিত করতে প্রত্যেক ব্যাংকে স্পেশাল অডিট করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। যারা ফেরত না দেওয়ার জন্য ঋণ নেন, তাদের প্রতি তিনবার ‘সাবধান’ বাণী উচ্চারণ করেছেন অর্থমন্ত্রী।

বুধবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে রূপালী ব্যাংকের বার্ষিক ব্যবসায়িক সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

মন্ত্রী জানান, সরকারি, বেসরকারি প্রতিটা ব্যাংকেই বিশেষ অডিট করা হবে। কাদের ঋণ দেওয়া হচ্ছে সেই গ্রাহকদের সরাসরি চেনা হবে। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের সাথে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়ে পরবর্তীতে জানানো হবে।

‘প্রকৃত ব্যবসায়ী এবং অসাধু ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করা হবে। ঋণ দেওয়ার জন্য সবাইকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। সাবধান, সাবধান, সাবধান। কেউ অসাধু উপায়ে ব্যবসা করার চিন্তা করবেন না।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘অর্থ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে শিগ‌গিরই তিন‌টি অডিট ফা‌র্মকে দিয়ে এ কাজ করানো হবে।’

তি‌নি আরও বলেন, ‘আমাদের দেশে দুই ধরনের ব্যবসায়ী রয়েছে-প্রথম প্রকার হলো, যারা আসলেই ব্যবসা করতে চায় কিন্তু মাঝে মাঝে হোঁচট খায়, হোঁচট খেয়ে খেলাপিতে পরিণত হয়। তাদের প্রতি সহনশীল হতে হবে।’

কিন্তু অন্য আরেক ব্যবসায়ী আছে, যারা ফেরত না দেওয়ার জন্য ঋণ নেন। তাদের প্রতি তিনবার সাবধান বাণী উচ্চারণ করেছেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘প্রকৃত ব্যবসায়ী এবং অসাধু ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করা হবে। ঋণ দেওয়ার জন্য সবাইকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। সাবধান, সাবধান, সাবধান। কেউ অসাধু উপায়ে ব্যবসা করার চিন্তা করবেন না।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘অসাধু ব্যবসায়ীদের কোনো প্রকার ছাড় নয়। যারা এদেরকে সাহায্য করবে (ব্যাংকের) তাদেরকেও কোনো ছাড় নেই। সময় কঠিন, সিদ্ধান্তও কঠিন।’

খেলাপি ঋণ আদায়ে যেসব আইনের সংস্কার করা প্রয়োজন, সেগুলোতেও সরকার হাত দেবে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য

উপর