logo
Floating 2
Floating

নুসরাতের কান্নাজড়িত ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)


নুসরাতের কান্নাজড়িত ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রের আলিম পরীক্ষার্থী অগ্নিদগ্ধ নুসরাত জাহান রাফি মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগের সমন্বয়ক ডা. সামন্তলাল সেন দগ্ধ নুসরাতের মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেন।

মৃত্যুর আগে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। লাইফ সাপোর্টও তেমন কাজ করছিল না। একপর্যায় তিনি মৃত্যুর কোলে ঢোলে পড়েন।

আর এরই মধ্যে নুসরাতের মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টার পার না হতেই সম্প্রতি একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এই ভিডিওটি নুসরাতের মারা যাওয়ার আগে সোনাগাজী থানায় রেকর্ড করা হয়েছিল। নুসরাত সে সময় তার মাদ্রাসার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে- কান্নাজড়িত কণ্ঠে নুসরাত পুলিশের কাছে অভিযোগ করছেন।

ওই ভিডিওতে নুসরাত জাহান রাফি পুলিশকে জানান, ক্লাসে থাকা অবস্থায় তাকে ডেকে নিয়ে যায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। তার এবার আলিম পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল।

নুসরাত জানায়, তিনি যখন প্রথম বর্ষে ছিলেন তখনই তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছিল অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলা। অধ্যক্ষ নুসরাতকে বলে ‘তোকে আমার অনেক ভালো লাগে।’ জবাবে নুসরাত বলেন, আমি আপনার ছাত্রী, মেয়ের মতো। এসব কি বলছেন! আমার আব্বুও একজন শিক্ষক। আপনি এসব বইলেন না। আমার খুব খারাপ লাগে।

এখানেই শেষ নয়, প্রথম বর্ষে থাকাকালীন সময়ই অধ্যক্ষ নুসরাতকে ২-৩ তিনবার তার কক্ষে ডেকেছিল বলে অভিযোগে উল্লেখ করে নুসরাত।

নুসরাত সে সময় জানান তার মাদ্রাসার বড় হুজুরকে তিনি জানিয়েছে অধ্যক্ষের কথা। কিন্তু হুজুর শুধু তাকে আশ্বস্তই করেন।

অধ্যক্ষ নুসরাতকে বলে, তোর জীবনে তো আগে একটা কলঙ্ক আছে। এখন তোকে কেউ বিশ্বাস করবে না। এখন আমার কাছে থাক।

এরপর ওই ভিডিওতে নুসরাতকে বলতে শোনা যায়, আগামীকাল তার শেষ ক্লাস। আর আজ অধ্যক্ষ পিয়ন দিয়ে তাকে ডেকেছে। আর ডেকে তার গায়ে হাত দেওয়া সহ অনেক বাজে কিছু করেছে। যা সে কখনো কল্পনাই করতে পারেন না। নুসরাত জানায় তার দুই বান্ধবীও তার সাথে অধ্যক্ষের রুমে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের যেতে দেওয়া হয়নি।

নুসরাত জানায় তার ওই দুই বান্ধবীর নাম নিশাত আর ফুর্তি।

এ সময় পুলিশ সদস্যারা নুসরাতকে আশ্বস্ত করেন নুসরাতের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন তারা।

ভিডিওটির বিষয়ে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সোনাগাজী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) কামাল  বলেন, ওই ভিডিওটি গত ২৭ মার্চের। নুসরাত তার মাকেসহ থানায় এসে অভিযোগ জানাতে এসেছিল। এ সময় নুসরাতের সাথে তার দুই বান্ধবীও ছিল।

এদিকে নুসরাতের মৃত্যুতে বুধবার (১০ এপ্রিল) রাতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব ইমরুল কায়েস এই তথ্য জানিয়েছেন।

নুসরাত জাহান রাফি সেই ভিডিওটি


মন্তব্য

উপর