logo
Floating 2
Floating

ফেরদৌস ভারতের নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে বিজেপির কটাক্ষের শিকার


ফেরদৌস ভারতের নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে বিজেপির কটাক্ষের শিকার

ঋতুপর্ণা, রচনা ব্যানার্জীসহ অনেক অভিনেত্রীর সাথে জুটি বেঁধে একাধিক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন ঢালিউডের ফেরদৌস আহমেদ। সিনেমার পর্দায় মানুষ তাকে দেখতে অভ্যস্ত থাকলেও এবার নির্বাচনী প্রচারণার ময়দানে দেখা গেল সেই ফেরদৌসকে। তাও আবার দেশের মাটিতে নয়, একেবারে বিদেশের মাটিতে!

ভারতে চলমান লোকসভার নির্বাচনী প্রচারণায় যোগ দিতে পশ্চিমবঙ্গে উড়ে যায় ফেরদৌস। রাজ্যটির উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের সমর্থনে রবিবার ছুটির দিনে প্রচারণায় দেখা যায় ফেরদৌসকে। হুডখোলা গাড়িতে করে অভিনেতাকে সাথে নিয়ে রোড শো করেন কানাইয়ালাল। 

একদিকে কংগ্রেস প্রার্থীকে দেখতে ভিড়, অন্যদিকে ফেরদৌসকে দেখতে রাস্তার দুইপাশে ছিল উৎসাহী মানুষের ভিড়। 

কংগ্রেস প্রার্থীর সাথেই ফেরদৌসও কখনও হাত নাড়িয়ে কখনও বা হাত জোড় করে মানুষের অভিনন্দন গ্রহণ করেন। পাশাপাশি কানাইয়ালালকে ভোট দেওয়ারও আহ্বান জানান তিনি। ফেরদৌসের সাথেই একই গাড়িতে ছিলেন টালিগঞ্জের অভিনেতা অঙ্কুশ ও অভিনেত্রী পায়েল সরকার। 

এদিন রায়গঞ্জের পাশাপাশি হেমতাবাদেও আরেকটি রোড শো-এ অংশ নেন। সোমবার করণদিহি এবং ইসলামপুরেও দুইটি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে দেখা যেতে পারে ফেরদৌসকে।

আগামী ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় রায়গঞ্জ কেন্দ্রে নির্বাচন। ওইদিনই রায়গঞ্জের সাথেই আরও দুইটি কেন্দ্র-দার্জিলিং ও জলপাইগুড়িতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। 

তবে ইতিমধ্যে ভারতের নির্বাচনী প্রচারণায় বাংলাদেশি নাগরিকের অংশগ্রহণে সমালোচনার ঝড় বইছে।

পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, ‘ভারতের একটি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল কীভাবে বিদেশি নাগরিককে দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে রোড শো করায়? আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানাই।’

এরকম আগে হয়নি জানিয়ে তিনি তৃণমূল কংগ্রেসকে কটাক্ষ্য করেন, ‘আগামীকাল হয়তো মমতা ব্যানার্জি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে দিয়ে তৃণমূলের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে ডাকতে পারেন।’

দিনাজপুর জেলার ৫০ শতাংশ মুসলিম ভোটারদের আকৃষ্ট করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি সভাপতি।

তিনি বলেন ‘তৃণমূল আসলে আমাদের দেখে ভয় পেয়ে গেছে, তাই বাংলাদেশ থেকে অভিনেতা নিয়ে এসেছে তারা।’

দিলীপ ঘোষের এমন তীর্যক মন্তব্যের পর কানাইয়ালালের নির্বাচনী এজেন্ট মুসারফ হুসেন জানান, ‘ফেরদৌস বাংলাদেশে একজন জনপ্রিয় অভিনেতা। আমরা তাকে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর হয়ে রোড শো-এ উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানিয়েছিলাম এবং তিনিও রাজি হয়েছেন। এছাড়া আর কিছুই নয়।’

মন্তব্য

উপর