logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

করোনা রোগীর চেয়েও বেশি ধরা পড়ছে ত্রাণের চাল চোর: রিজভী


করোনা রোগীর চেয়েও বেশি ধরা পড়ছে ত্রাণের চাল চোর: রিজভী

দেশে করোনাভাইরাসের রোগী যত শনাক্ত হচ্ছে তার চেয়েও বেশি ত্রাণের চাল চোর ধরা পড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রোববার এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

করোনার চেয়েও শক্তিশালী ওবায়দুল কাদেরের এমন মন্তব্যের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, করোনার চেয়েও তারা নাকি বেশি শক্তিশালী। সেটিই প্রমাণিত হলো— করোনা রোগী যত শনাক্ত হচ্ছে বা ধরা পড়ছে, তার চেয়েও বেশি ত্রাণের চাল চোর ধরা পড়ছে।

চাল চু্রির সমালোচনা করে রিজভী আরও বলেন, করোনায় মরার ওপর খাড়ার ঘা হিসেবে যোগ হয়েছে চাল চুরির মহোৎসব। মিডিয়ায় প্রতিদিন যে পরিমাণ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা প্রকাশিত হচ্ছে, তার চেয়েও চাল চোরের সংখ্যা বেশি ধরা পড়ছে। যেখানে কে বাঁচবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই, যেখানে জীবন এখন অনেক বেশি অনিশ্চিত, সেখানে কী করে আওয়ামী লীগের লোকজন ত্রাণের মালামাল চুরি করে খায় ? এদের লোভ-লালসা, লজ্জা-শরম, বিবেকবোধ সবকিছু অন্ধ করে দিয়েছে।

আওয়ামী লীগের জনপ্রতিনিধিরা চালু চুরির সঙ্গে জড়িত দাবি করে রিজভী বলেন, চাল চুরির ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের জনপ্রতিনিধিরাই বেশি জড়িত। সারাদেশে গত ৯ দিনে অন্তত ২ হাজার ২৬৪ বস্তা সরকারি ত্রাণের চাল চুরির খবর পাওয়া গেছে।

সিরাজগঞ্জে এক শিশুর আত্মহত্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সিরাজগঞ্জের বেলকুচি পৌর এলাকায় একটি হৃদয়বিদারক মর্মস্পর্শী ঘটনায় সবাই নির্বাক হয়ে গেছে। সেখানে আফরোজা নামে এক শিশু ক্ষুধার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে।

দেশের মানুষ অনাহারে দিন কাটাচ্ছে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, সরকারি হিসাবে দেশের খাদ্য গুদামগুলোতে ১৭দশমিক ৫১ লাখ টন চাল মজুত আছে। এই পরিমাণ চাল দিয়ে ৩/৪ কোটি মানুষকে ছয় মাস অনায়াসে খাওয়ানো সম্ভব। অথচ মানুষ অনাহারে-অর্ধাহারে দিন কাটাচ্ছে।


মন্তব্য

উপর