logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

করোনায় অসহায়দের সাহায্যে নিলামে ২০ লাখে বিক্রি সাকিবের ব্যাট


করোনায় অসহায়দের সাহায্যে নিলামে ২০ লাখে বিক্রি সাকিবের ব্যাট

করোনা মহামারীতে অসহায়দের মাঝে অর্থ দানের জন্য নিলামে তোলা বাংলাদেশ সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানের সেই ব্যাটটির সর্বোচ্চ দাম উঠেছে ২০ লাখ টাকা।

জানা গেছে, ব্যাটটি কিনতে চেয়েছেন রাজ নামের যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী এক বাংলাদেশি।

তবে টাকা পরিশোধের পর আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নিলাম পরিচালনাকারী কর্তৃপক্ষ।

করোনা মোকাবেলায় অর্থ সাহায্যের জন্য সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে ব্যাট নিলামের ঘোষণা দেন সাকিব।

এরপর গতকাল বুধবার বিকালেই ফেসবুকে অকশন ফর অ্যাকশন নামক পেজে ব্যাটটি নিলামে তোলা হয়। ব্যাটটির ভিত্তিমূল্য ধরা হয় ৫ লাখ টাকা।

বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে নিলাম পরিচালনা করে অকশন ফর অ্যাকশন কর্তৃপক্ষ।

সাকিব আল হাসান নিজে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে যুক্ত ছিলেন। রাত সোয়া ১১টায় নিলাম শেষ হয়।

নিলামে বিক্রি করা ব্যাটটি সাকিবের খুবই প্রিয় একটি ব্যাট। এই ব্যাট দিয়ে ২০১৯ বিশ্বকাপে খেলেছিলেন। ব্যাটটি দিয়ে বিশ্বকাপে ২ সেঞ্চুরিও ৫ হাফসেঞ্চুরি হাঁকান সাকিব।

ব্যাট নিয়ে সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘মানুষের জীবনের মূল্যের চেয়ে নিশ্চয়ই ব্যাটের মূল্য বেশি না। মানুষের কল্যাণের জন্য কাজ করতেপারব বলে ভালো লাগছে। সম্পূর্ণ টাকাই করোনা মোকাবেলার জন্য ব্যয় করা হবে।’

করোনায় মোকাবেলার জন্য সাকিব আল হাসান একটি ফাউন্ডেশন চালু করেছেন। তার নাম সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন। এই ফাউন্ডেশনেরমাধ্যমেই সাকিব অর্থ সংগ্রহ করছেন। তিনি সবাইকে ফাউন্ডেশনে অর্থ দেয়ার জন্য অনুরোধ করেছেন। ফাউন্ডেশনের তহবিলে যত টাকা জমাহবে তার সবই মানুষের কল্যাণের জন্য ব্যয় করা হবে বলে জানিয়েছেন এই ক্রিকেটার।

এই ব্যাটের বিশেষত্ব হলো, ২০১৯ সালের পুরো বিশ্বকাপটা এই ব্যাট দিয়েই খেলেছেন সাকিব। যেখানে ৮ ম্যাচে ২ সেঞ্চুরিসহ বাংলাদেশের হয়ে রেকর্ড ৬০৬ রান করেন তিনি। এছাড়া আগে-পরে সবমিলিয়ে এই ব্যাট দিয়ে দেড় হাজারের বেশি আন্তর্জাতিক রান করেছেন সাকিব।

প্রসঙ্গত আপাতত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নির্বাসনে রয়েছেন সাকিব। জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করায় তাকে দুই বছর সব ধরনের ক্রিকেটে নিষিদ্ধ করে আইসিসি। তবে দোষ স্বীকার করায় এক বছর স্থগিত করা হয়।

মন্তব্য

উপর