logo
Floating 2
Floating

স্বামীকে অপহরণ, অতঃপর স্ত্রীকে ভিডিও কলে যা করলো দুষ্কৃতিরা


স্বামীকে অপহরণ, অতঃপর স্ত্রীকে ভিডিও কলে যা করলো দুষ্কৃতিরা

রাত সাড়ে ১০টায় যখন গন্তব্যে পৌঁছলেন ওলা চালক সোমশেখর, চার যাত্রী বললেন, আরও একটু এগিয়ে বাড়ি পর্যন্ত ছেড়ে দিতে। যাত্রীদের কথায় বিশ্বাস করে অস্বীকার করেননি সোমশেখর। কিন্তু সেটাই তার জীবনে ডেকে আনল ভয়ঙ্কর দুঃস্বপ্ন।

খানিকটা এগোতেই চার যাত্রী নিজেদের রূপ ধরল। শুরু হল সোমশেখরকে মারধর। এক সময় তাকে চালকের আসন থেকে সরিয়ে পিছনে বসিয়ে চলল লুঠপাট। নগদ, পেটিএম-এ যা টাকাপয়সা ছিল সর্বস্ব হাতিয়ে নিয়েও থামেনি তারা। সোমশেখরের ফোন থেকেই তার স্ত্রীকে ভিডিও কল করে তারা। স্বামীকে খুনের হুমকি দিয়ে তাকে নগ্ন হতে বাধ্য করল দুষ্কৃতিরা।

এমনই রোমহর্ষক ঘটনার সূত্রপাত হয় ভারতের বেঙ্গালুরুর অদুগরিতে।  আর সোমশেখরের প্রাথমিক বিপদ কাটে প্রায় ১০০ কিলোমিটার দূরে কর্নাটকের রামনগর জেলার চান্নাপাটনা এলাকার একটি লজে। অভিযোগ পেয়েই ওই লজে অভিযান চালায় পুলিশ। কিন্তু ততক্ষণে এলাকা ছেড়ে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতিরা। তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছেন তদন্তকারী অফিসাররা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অদুগরি থেকে দোমোসান্দ্রা যাওয়ার জন্য ক্যাব বুক করে চার জন গাড়িতে ওঠে। গন্তব্যে পৌঁছনোর পর বাড়ির কাছে নামিয়ে দেওয়ার কথা বলে চালকসহ ক্যাব অপহরণ করে দুষ্কৃতিরা। তারপর নিজেরাই গাড়ি চালিয়ে নিয়ে যায় রামনগর জেলার দিকে।

ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা শোনাতে গিয়ে সোমশেখর বলেন, ‘‘প্রায় ১০০ কিলোমিটার গাড়ি চালিয়ে নিয়ে যায় দুষ্কৃতিরা। আমার কাছে নগদ প্রায় ৯,০০০ টাকা ছিল। ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ২০,০০০ টাকা ছিল। সেটা পেটিএম-এর মাধ্যমে এক আত্মীয়কে পাঠাতে বলি। সেই টাকাও তুলে নেয় ওই চার জন।’’

‘‘কিন্তু তারপরও অত্যাচার শেষ হয়নি। এক জায়গায় গিয়ে গাড়ি থামিয়ে দেয় দুষ্কৃতিরা। আমার ফোন থেকেই আমার স্ত্রীকে ভিডিও কল করে। আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে স্ত্রীকে নগ্ন হতে বাধ্য করে। কলের সময় প্রচুর স্ক্রিন শট নিয়ে নেয়। তার পর আমার ফোনটিও নিয়ে নেয়। এরপর গাড়িসহ আমাকে জোর করে একটি লজে তোলে। সেখানে বাথরুমে যাওয়ার নাম করে জানালা দিয়ে বেরিয়ে কোনোক্রমে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে আসি,’’ পুলিশকে জানিয়েছেন সোমশেখর।

ওই অবস্থাতেই স্থানীয় একটি থানায় গোটা ঘটনার কথা জানান সোমশেখর। পরে পুলিশের সাহায্যেই অদুগরি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। সূত্র: আনন্দবাজার

দৈনিক প্রজন্ম ডটকম/ এস এস

মন্তব্য

উপর