logo
Floating 2
Floating

ভুল স্বীকার করে, এবার হেঁটে অফিসে গেলেন প্রতিমন্ত্রী পলক


ভুল স্বীকার করে, এবার হেঁটে অফিসে গেলেন প্রতিমন্ত্রী পলক

হেলমেটবিহীন বাইকে চড়ার জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ভুল করেছেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি তাকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম। সে আমাকে বলেছেন, আমার ভুল হয়েছে, দুঃখিত। পুনরায় আর হবে না। সে একজন মন্ত্রী হিসেবে খোলা মনে কথাটি বলেছেন এবং ভুল স্বীকার করার পর আমি তো আর কিছু বলতে পারি না।’

তবে হেলমেট ছাড়া বাইকে চড়ে অফিসে যাওয়ায় সমালোচনার মধ্যেই এবার হেঁটে অফিসে গেলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

যানজটের কারণে সময় বাঁচাতে বৃহস্পতিবার এভাবে হেঁটেই অফিসে যান তিনি।

এরপর তিনি নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তার হাঁটার ভিডিও ও ছবি শেয়ার করেন।

ফেসবুকের মন্তব্য অপশনে দেখা যায়, এই ছবি ও ভিডিও নিয়েও ইতিবাচক, নেতিবাচক দুই ধরনের প্রতিক্রিয়া রয়েছে।

এ বিষয়ে পলক বলেন, বৃহস্পতিবার ১০টার সময় আগারগাঁওয়ে আইসিটি ভবনে একটি বৈঠক ছিল। ওই এলাকায় মেট্রোরেলের কাজ চলছে, একটি রাস্তা বন্ধ ছিল, ফলে যানজট ছিল। তাই আইডিবি ভবনের সামনে গাড়ি থেকে নেমে হেঁটে কার্যালয়ে গিয়েছি।

তিনি বলেন, সামান্য রাস্তা, ওইটুকু হেঁটে যেতে ৫ থেকে ১০ মিনিট লাগে। গাড়িতে বসে থাকলে দেরি হয়ে যেত। এতে বৈঠকের জন্য অপেক্ষারত অন্যরা হয়তো বিরক্ত হতেন। এ কারণে হেঁটেই চলে যাই।

এটাকে তিনি ‘সিম্পল’ ব্যাপার হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এর আগে, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য হিসেবে শপথ নেয়ার পর প্রথম দিনে বাইকে চড়ে অফিসে যান তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

বাইকে চড়া দুটি ছবিতে মাথায় হেলমেট না থাকায় সমালোচনার মুখে পড়েন পলক।

এ বিষয়ে পলক জানিয়েছিলেন, ‘সময় বাঁচানোর জন্য আমি বাইকের সাহায্য নিয়েছি, তার কাছে কোনো বাড়তি হেলমেট ছিল না।’

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, হেলমেট ছাড়া মোটরবাইকে ‘আর উঠবেন না’ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এ বিষয়ে তিনি ‘ভুল স্বীকার করে দুঃখপ্রকাশ করেছেন’।


মন্তব্য

উপর