logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

অবশেষে দূষিত পানি সরবরাহের দোষ স্বীকার  করলো ওয়াসা


অবশেষে দূষিত পানি সরবরাহের দোষ স্বীকার  করলো ওয়াসা

রাজধানীতে দূষিত পানির সরবরাহের কথা স্বীকার করলো ওয়াসা কর্তৃপক্ষ। তারা এ ব্যাপারে একটি প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করেছে। সাম্পতিক সময়ে ঢাকার ৫৯টি এলাকায় দূষিত পানি সরবরাহের কথা ওয়াসা স্বীকার করেছে ঢাকা ওয়াসা।

আজ বৃহস্পতিবার বিচারপতি এজিএম হাসানের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চে প্রতিবেদনটি দাখিল করেন।

ওয়াসার ১০টি জোনে বিভক্ত ৫৭ এলাকাগুলো হলো: যাত্রাবাড়ী, বাসাবো, মুগদা, রাজারবাগ, কুসুমবাগ, জুরাইন, মানিকনগর, মান্ডা, ধোলাইপাড়, মাতুয়াইল, ভাগলপুর, লালবাগ, বকশীবাজার, শহীদনগর, জিগাতলা, ধানমন্ডি, শুক্রাবাদ, কলাবাগান, ভুতের গলি, মোহাম্মদপুর, শ্যাওড়াপাড়া, পীরেরবাগ, মনিপুর, পাইকপাড়া, কাজীপাড়া, মিরপুর, মহাখালী, তেজগাঁও, সিদ্ধেশ্বরী, শাহজাহানপুর এবং খিলগাঁও।

এই তালিকায় আরও রয়েছে: মগবাজার, নয়াটোলা, রামপুরা, মালিবাগ, পরীবাগ, কদমতলী, দনিয়া, শ্যামপুর, রসুলপুর, মেরাজনগর, পাটেরবাগ, শনিরআখড়া, কোনাপাড়া, মুসলিমনগর, বাড্ডা, আফতাবনগর, বসুন্ধরা, ভাটারা, উত্তরা, খিলক্ষেত, ফায়েদাবাদ, মোল্লারটেক, রানাগোলা, কাফরুল, কচুক্ষেত এবং পল্লবী।

এসব এলাকার অধিবাসীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওয়াসা এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে।

এর আগে ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষায় কত টাকা খরচ হবে, তা জানিয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় হাইকোর্টে প্রতিবেদন পাঠিয়েছে। মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. জহিরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এই প্রতিবেদন গতকাল বুধবার অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে পৌঁছে। আজ বৃহস্পতিবার প্রতিবেদনটি বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে উপস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোতাহার হোসেন সাজু।

প্রতিবেদনে দুই দফায় পানির এক হাজার ৬৪টি নমুনা পরীক্ষায় খরচ ধরা হয়েছে ৭৫ লাখ ৬১ হাজার ৫০০ টাকা। এর মধ্যে নিজস্ব ল্যাবে খরচ হবে ৫০ লাখ ৭৬ হাজার ৫০০ টাকা এবং দ্বিতীয় দফায় বুয়েটের ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষায় খরচ হবে ২৪ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। প্রতিবেদনে বলা হয়, গত তিন মাসে হটলাইনের (১৬১৬২) মাধ্যমে ঢাকার আটটি জোন থেকে ২৯২টি অভিযোগ এসেছে। এসব স্থান থেকে নমুনা সংগ্রহ করে প্রথমে ওয়াসার নিজস্ব ল্যাবে পরীক্ষা করা হবে। পরে আরো নিশ্চিত হতে তা বুয়েটের ল্যাবে পরীক্ষা করা হবে।

গত বছরের ৬ নভেম্বর হাইকোর্টের দেওয়া এক নির্দেশে ঢাকা ওয়াসার পানি পরীক্ষার জন্য চার সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, বুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) এবং আইসিডিডিআরবির প্রতিনিধির সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটির নামের তালিকা গত ১৮ এপ্রিল অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে পাঠায় মন্ত্রণালয়।

মন্তব্য

উপর