logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

ময়মনসিংহে নিখোঁজের ৩ দিনপর যুবলীগকর্মীর লাশ উদ্ধার


ময়মনসিংহে নিখোঁজের ৩ দিনপর যুবলীগকর্মীর লাশ উদ্ধার

ময়মনসিংহ নগরীর আকুয়া এলাকা থেকে নিখোঁজের ৩ দিনপর যুবলীগকর্মী শফিকুল ইসলাম শপুর (২৫) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে পরিবারের দাবি, শপুকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এই হত্যা পরিকল্পিত এবং গুম করার জন্য লাশ পানিতে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল স্বজনদের দাবি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুর ১ টার দিকে নগরীর আকুয়া কলাবাগান এলাকার একটি পুকুর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

কোতুয়ালী মডেল থানা ইন্সপেক্টর (অপারেশন) খন্দকার শাকের আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশ উদ্ধার করা মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে আইনুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এবিষয়ে নিহত শপুর স্বজন ও মহানগর যুবলীগ সদস্য প্রয়াত আজাদ শেখের স্ত্রী দিলরুবা দাবি করে বলেন, গত ১০ জুন রাত সাড়ে ৭ টার দিকে ফোন করে শপুকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে সে আর রাতে বাড়ি ফিরে আসে নাই। অনেক খোঁজ করেও তাকে আর পাওয়া যায়নি। এ ঘটনার পরদিন ১১ জুন কোতুয়ালী মডেল থানায় একটি সাধারন ডায়েরী (জিডি) করা হয়। আজ দুপুরে স্থানীয়রা শপুর মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

তিনি আরও জানান, শপুর শরীর ও মুখে আঘাতের একাধিক চিহৃ রয়েছে। তবে যুবলীগ নেতা আজাদ হত্যাকান্ডের সঙ্গে যারা জরিত ছিল, তারাই শপুকে হত্যা করেছে বলে দাবি দিলরুবার।

মন্তব্য

উপর