logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

গুজব নয় সত্য, ৩৫ টাকার লবণ ৩০ টাকায় ‍দিচ্ছে স্বপ্ন


গুজব নয় সত্য, ৩৫ টাকার লবণ ৩০ টাকায় ‍দিচ্ছে স্বপ্ন
পেঁয়াজের পর চালের দাম বৃদ্ধির মধ্যে লবণের দাম বেড়ে যাওয়ার যে কথা ছড়িয়েছে, সে গুজবে কাউকে কান না দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে সরকার বলেছে, দেশের চাহিদার ছয় গুণ বেশি লবণ মজুদ আছে।

এদিকে চেইন সুপার শপ স্বপ্ন’তে ৩৫ টাকার লবণ ৩০ টাকায় ‍পাচ্ছেন। স্বপ্নর সকল আউটলেটেই রয়েছে এমন সুযোগ। তবে কোন কোন আউটলেটে গুজবের কারনে স্টক শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে সেগুন বাগিচা স্বপ্নর আউটলেটে ম্যানেজার জানান , অজানা গুজবের কারণে আজ ক্রেতাদের একটা বড় অংশ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি পরিমাণে লবণ কেনার কারণে সন্ধার ভেতরেই আমাদের অনেকগুলো আউটলেটে স্টক শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে। আগামীকাল স্বপ্ন-এর সব আউটলেটে আবার লবণ পাওয়া যাবে।

লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে বলে সোমবার সন্ধ্যার পর সিলেট, হবিগঞ্জ, গোপালগঞ্জ, ঠাকুরগাঁও, নেত্রকোনা জেলায় গুজব ছড়ায় এবং তাতে লবণ কেনার হিড়িক শুরু হওয়ায় দাম যায় বেড়ে।

লবণের মজুদের কোনো সঙ্কট নেই জানিয়ে শিল্প মন্ত্রণালয় বলছে, দেশে প্রতি মাসে ভোজ্য লবণের চাহিদা কম-বেশি ১ লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে লবণের মজুদ আছে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টন।

“সে হিসাবে লবণের কোনো ধরণের ঘাটতি বা সংকট হবার প্রশ্নই ওঠে না।”

মজুদ লবণের মধ্যে কক্সবাজার ও চট্টগ্রামের লবণ চাষিদের কাছে ৪ লাখ ৫ হাজার মেট্রিক টন এবং বিভিন্ন লবণ মিলের গুদামে ২ লাখ ৪৫ হাজার মেট্রিক টন রয়েছে জানিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়।

“এছাড়া সারাদেশে বিভিন্ন লবণ কোম্পানির ডিলার, পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাদের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণে লবণ মজুদ রয়েছে। পাশাপাশি চলতি নভেম্বর মাস থেকে লবণের উৎপাদন মওসুম শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া ও মহেশখালী উপজেলায় উৎপাদিত নতুন লবণও বাজারে আসতে শুরু করেছে,” বলা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

লবণ সংক্রান্ত বিষয়ে তদারকির জন্য শিল্প মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক) প্রধান কার্যালয়ে ইতোমধ্যে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এর নাম্বার হচ্ছে: ০২-৯৫৭৩৫০৫ (ল্যান্ড ফোন), ০১৭১৫-২২৩৯৪৯, ০১৬২৪২৭৬০১২  (সেল ফোন)। লবণ সংক্রান্ত যে কোনো তথ্যের প্রয়োজনে কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এছাড়া লবনের দাম বেশি চাইলে ভোক্তারা সরাসরি এই নম্বরেও ফোন দিয়ে দেখতে পারেন।

জাতীয় ভোক্তা অভিযোগ কেন্দ্র:
ফোন-০২-৫৫০১৩২১৮, ০১৭৭৭-৭৫৩৬৬৮.
এছাড়া ই-মেইল করতে পারেন, nccc@dncrp.gov.bd এই ঠিকানায়।

এর পাশাপাশি নিকটস্থ থানাকে অবহিত করতে পারেন। দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণেও চেয়েও অনেক বেশি লবণ মজুদ রয়েছে। এরপরেও কোনো অসাধু ব্যবসায়ী ফায়দা লুটতে চাইলে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান।

মন্তব্য

উপর