logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

ফিরমিনোর গোলে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা লিভারপুলের


ফিরমিনোর গোলে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা লিভারপুলের

ফাইনালে ফ্লামেঙ্গোকে হারিয়ে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুলল লিভারপুল। গতকাল শনিবার দোহার খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে নির্ধারিত সময় গোলশূন্য থাকার পর অতিরিক্ত সময়ের ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে তারা। গোলটি করেছেন রবার্তো ফিরমিনো, তিনি একজন ব্রাজিলিয়ান।

প্রথমার্ধের খেলার শুরুর ৬ মিনিটের মধ্যে তিনটি ভালো সুযোগ পেয়ে প্রতিপক্ষকে চেপে ধরতে পারেনি লিভারপুল। প্রথম মিনিটে জর্ডান হেন্ডারসনের পাসে ঠাণ্ডা মাথায় জালে বল জড়াতে চেয়েছিলেন ফিরমিনো। এগিয়ে আসা গোলকিপার ডিয়েগো আলভেসের মাথার ওপর দিয়ে চিপ করেন তিনি। কিন্তু শটটি গোলবারের ওপর দিয়ে চলে যায়।

পরে ন্যাবি কেইটা ও ট্রেন্ট আলেক্সান্ডার-আর্নল্ডের শটও লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এর পরপরই প্রতিপক্ষের কাছে কোণঠাসা হয়ে পড়লে বলের দখল পেতেও কষ্ট হয় অলরেডদের। এতে গোলশূন্য থেকে বিরতিতে যেতে হয় তাদের। 

তবে দ্বিতীয়ার্ধটা ছিল দুই দলের। কিন্তু দুর্ভাগ্য লিভারপুলের। খেলা শুরু হতে না হতেই ফিরমিনোর শট গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। অপরদিকে ৫৪তম মিনিটে আলিসনের নৈপুণ্যে বেঁচে যায় লিভারপুল। এরপর ৭৭তম মিনিটে মোহামেদ সালাহ জালে বল পাঠালে অফ সাইডের জন্য গোল হয়নি। অবশেষে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত ৩০ মিনিটে।

তবে অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধে দলের হয়ে ব্যবধান গড়ে দেন লিভারপুলের ফিরমিনো। সাদিও মানের কাছ থেকে বল পেয়ে ঠান্ডা মাথায় প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠান এই ফরোয়ার্ড। 

অবশ্য এই ব্যবধান আরো বাড়াতে পারত ৯৯তম মিনিটে এগিয়ে যাওয়া লিভারপুল। সালাহর বাঁকানো শট দারুণ দক্ষতায় রুখে দেন ফ্লামেঙ্গোর গোল কিপার দিয়েগো আলভেস।

অপরদিকে শেষ মুহূর্তে সমতায় ফিরতে পারত ফ্লামেঙ্গো। যদি লিঙ্কনের শট লিভারপুলের গোলপোস্টের ওপর দিয়ে না যেত। এর ফলে একমাত্র গোলে বিশ্ব জয়ের উচ্ছ্বাসে মাতে অলরেডরা।

মন্তব্য

উপর