logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

হজ্ব নিয়ে পীরের কুটক্তি, অবশেষে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে থানায় মামলা


হজ্ব  নিয়ে পীরের কুটক্তি, অবশেষে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে থানায় মামলা

পবিত্র হজ্ব নিয়ে কুটক্তি ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের প্রতিবাদে ভৈরবের গুলে মদিনা দরবারের পীর আবুল বাসারের বিরুদ্ধে দায়ের করা লিখিত অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করা হয়েছে। 

অনেক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ১১ জানুয়ারি শনিবার রাতে অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভূক্ত হয়। ১০ দিন পূর্বে অর্থাৎ ২ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার রাতে কিশোরগঞ্জ জজ কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলাম মামুন বাদী হয়ে গুলে মদিনা দরবারের পীর আবুল বাসারের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ফলে অভিযোগ দায়েরের ৩ দিন পর অর্থাৎ গত ৫ জানুয়ারি রোববার আবুল বাসারকে গ্রেফতারের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেয় ইমাম-ওলামা পরিষদ। এতে সাড়া দেয় ভৈরবের হাজার হাজার তৌহিদী জনতা। ঐদিন শহরের ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে নিউ টাউন এলাকার ওয়ালটনের সামনে খণ্ড খণ্ড মিছিলে জড়ো হতে থাকে লোকজন। শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে কানায় কানায় ভরে ওঠে এলাকাটি। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা গুলে মদিনা দরবারের ভণ্ড পীর আবুল বাসারকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতারের আল্টিমেডাম দেন। পরে ওয়ালটনের সামনে থেকে ইমাম-ওলামা পরিষদের নেতৃত্বে হাজার হাজার লোকজন নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। পরে মিছিলটি মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ভার্স্কয দুর্জয় মোড় প্রদক্ষিণ করে ভৈরব-কিশোরগঞ্জ আঞ্চলিক সড়ক হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে জেলা প্রসাশক বরাবরে গুলে মদিনা দরবারের পীর আবুল বাসারকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে স্বারকলিপি দেয়। এছাড়াও ভণ্ড পীর আবুল বাসারের ছবি ও কুশপুত্তলিকায় জুতাপেটা করে প্রতিবাদ জানায় তৌহিদী জনতা।


এছাড়াও গত ১০ জানুয়ারি শুক্রবার রাতে শহরের কমলপুর গাছতলা ঘাটে আল কুরআন একাডেমিতে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় পবিত্র হজ্ব নিয়ে কুটক্তি ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের প্রতিবাদে শাইখুল হাদীস আল্লামা মামুনুল হক ভণ্ড পীর আবুল বাসারকে গ্রেফতারের দাবী জানান। তা-না হলে কঠোর আন্দোলনের ডাক দেবেন বলে হুশিয়ারী দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, আল্লামা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ূবী। এর ১ দিন পর ভৈরব থানা পুলিশ অভিযোগটি মামলা হিসেবে আমলে নেয়।


জানা গেছে, সম্প্রতি হবিগঞ্জে এক ওয়াজ মাহফিলে ভৈরবের গুলে মদিনা দরবারের পীর আবুল বাসার পবিত্র ওমরা হজ্ব নিয়ে কুটক্তিসহ ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। ফলে সাধারণ মানুষের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।


এ প্রসঙ্গে ভৈরব থানার ওসি মোহাম্মদ শাহীন সাংবাদিকদের জানান, প্রাথমিক তদন্ত শেষে অভিযোগটি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করা হয়েছে এবং আসামিকে গ্রেফতার করতে মাঠে কাজ করছে পুলিশ।

মন্তব্য

উপর