logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

'প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ উৎসবমুখর ভোট হবে'


'প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ উৎসবমুখর ভোট হবে'

'নির্বাচনে নেতাকর্মীসহ জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে নেমে পড়েছে। যে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে তাতে হয়তো জনগণের কিছুটা অসুবিধা হতে পারে। তবে উৎসবমুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। আশা করি, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ উৎসবমুখর ভোট হবে।'

আজ বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুর সাড়ে ১২টায় রাজধানীর শ্যামপুরের ধোলাইপাড় উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে নির্বাচনী প্রচারণা শুরুর আগে এসব কথা বলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে তাপস বলেন, নির্বাচনী আচরণবিধি যেন লঙ্ঘন না হয়, সেদিকে আমরা ও আমাদের নির্বাচনী মনিটরিং কমিটি লক্ষ্য রাখছে। তিনি বলেন, আচরণবিধি যেন লঙ্ঘন না হয় আমরা সেই চেষ্টা করছি। আমাদের সিটি কর্পোরেশনের মনিটরিং কমিটিও চেষ্টা করছে। আমাদের থানা ও ওয়ার্ডে যে পরিচালনা কমিটি রয়েছে তারাও এটি লক্ষ্য রাখছে। আমি যেখানে যাচ্ছি সেখানে নেতাকর্মীদের সুশৃঙ্খলভাবে কাজ করার নির্দেশ দিচ্ছি, যেন জনভোগান্তির সৃষ্টি না হয়। আমরা আরো সচেতনভাবে লক্ষ্য রাখবো জনগণের যেন কোনো ভোগান্তি না হয়।

নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবি প্রসঙ্গে ব্যারিস্টার তাপস বলেন, পঞ্জিকা অনুযায়ী হয়তো নির্বাচন কমিশনের ভুল হয়ে গেছে। তারপরেও আমরা তাদের (সনাতন ধর্মালম্বী) প্রতি সহানুভূতিশীল। যেহেতু নির্বাচনে তারিখ নির্ধারিত হয়ে গেছে তাই আমাদের গণসংযোগ চালিয়ে যেতে হবে। আমি সত্যি অনেক দুঃখিত বিষয়টির জন্য। 

নির্বাচনে বিজয়ের বিষয়ে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তাপস। তিনি বলেন, গত পাঁচদিন ধরে আমরা যে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছি তাতে জনগণের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আমাদের ঢাকার উন্নয়নের দেওয়া পাঁচ দফা উন্নয়ন পরিকল্পনা জনগণ সাদরে গ্রহণ করেছে। আমরা বিশ্বাস করি আগামী ৩০ তারিখে বিপুল ভোটে নৌকার বিজয় হবে। দায়িত্ব পাওয়ার প্রথম দিন থেকেই আমরা কাজ শুরু করবো একটি উন্নত ঢাকা গড়তে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়াসহ দলের স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য

উপর