logo
Floating 2
Floating

ঢাকাসহ ভৈরব-কুলিয়ারচরে সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছে বিএনপি নেতা শরীফুল আলম


ঢাকাসহ ভৈরব-কুলিয়ারচরে সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেছে বিএনপি নেতা শরীফুল আলম
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সতর্কতার অংশ হিসেবে রাজধানী ঢাকাসহ ভৈরব-কুলিয়ারচর ও কিশোরগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় মাস্ক ও সাবান বিতরণ করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি'র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপি'র সভাপতি আলম গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ শরীফুল আলম (সিআইপি)।  
জানা যায়, রাজধানী ঢাকার অলিগলিতে থাকা সুবিধাবঞ্চিত মানুষের হাত ধোয়ার জন্য ১০০ কাটুন সাবান ও কয়েক হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়।

তাছাড়াও তার নিজ এলাকা ভৈরব-কুলিয়ারচর সহ কিশোরগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ১০ হাজারেও বেশি মাস্ক বিতরণ করা হয়।     
আর এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (২৬ মার্চ) সকালে ও বিকেলে শরীফুল আলমের পক্ষ থেকে কুলিয়ারচর উপজেলার সালুয়া ইউনিয়ন সহ অন্যান্য ইউনিয়নে মাস্ক বিতরণ করেছে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
সালুয়া ইউনিয়নে মাস্ক বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন, সালুয়া ইউনিয়ন বিএনপি'র সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমির চাঁন মিয়া, উপজেলা বিএনপি'র সদস্য খাইরুল ইসলাম বকুল, সালুয়া ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান সাদেক, যুবদল নেতা মোশাররফ হোসেন পিন্টু, যুবদল নেতা ফারুক মিয়া, যুবদল নেতা খোকন মিয়া, সালুয়া ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি সৈয়দ আলী ও ছাত্রদল নেতা ওবায়দুল্লাহ সহ বিএনপি'র অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীগন।
মাস্ক বিতরণের ব্যাপারে জানতে চাইলে সালুয়া ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান সাদেক বলেন, আমরা শরীফুল আলম ভাইয়ের পক্ষ থেকে আমরা এ মাস্ক বিতরণ করছি। তিনি বলেন, এর আগেও বিভিন্ন দুর্যোগে শরীফুল আলম ভাইয়ের পক্ষ থেকে বিভিন্নভাবে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি এবং আজকের এ কার্যক্রমটিও এরই অংশ। মূলত যাদের পক্ষে মাস্ক কেনা কষ্টসাধ্য হয়ে যায় তাদের জন্যই শরীফুল আলম ভাইয়ের এই উদ্যোগ।
এ ব্যাপারে শরিফল আলমের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা তিনি বলেন, প্রাণঘতী করোনাভাইরাস এখন সারা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। এ সংকট থেকে বাঁচতে হলে সামাজিকভাবে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। এমনকি যার যার সাধ্য অনু্যায়ী সমাজের সুধাবঞ্চিত মানুষের পাশে দাড়াতে হবে।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমরা যেকোনো প্রকৃতিক দুর্যোগ সহ অন্যান্য দুর্যোগ পরিস্থিতিতে ভৈরব-কুলিয়ারচরবাসীর পাশে ছিলাম, এবং আজও আছি, পরেও থাকবো ইনশাআল্লাহ।
বর্তমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে রাজধানী ঢাকার অলিগলিতে থাকা সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে আমাদের আলম গ্রুপের পক্ষ থেকে ১০০ কাটুন (১২০০০ পিছ) আমলের ১নং পঁচা সাবান ও কিছহ মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। তাছাড়াও আমার নিজ এলাকা ভৈরব-কুলিয়ারচর সহ কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন উপজেলা বসবাসরত সুবিধাবঞ্চিত মানুষের মাঝে ১০ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।
পরবর্তীতে আরো কোনো পদক্ষেপ আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, আমি আমার সাধ্য অনুযায়ী এ ধারা এ পরিস্থিতিতে অব্যাহত রাখবো ইনশাআল্লাহ।
পরে তিনি করোনাভাইরাস নিয়ে আতংক হওয়ার কোনো কারণ নেই উল্লেখ বলেন, শুধু মাত্র নিজে ও সমাজ সচেতনতার মাধ্যমেই এ ভাইরাস থেকে আমাদের বাঁচা সম্ভব। তাই আসুন আমরা সবাই করোনা প্রতিরোধে সতর্কতা অবলম্বন করি, যতটা সম্ভব ঘরে থাকি এবং অন্যের সংস্পর্শতা এড়িয়ে চলি।
এ সময় তিনি স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞদের পরামর্শ ও সরকারি বিধিনিষেধ মেনে চলার জন্য ভৈরব-কুলিয়ারচরবাসী সহ দেশবাসীর প্রতি আহবান জানান।

মন্তব্য

উপর