logo
Floating 2
Floating

৬১ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে সেই সজীব পেল সততার পুরষ্কার অটোরিকশা


৬১ লাখ টাকা ফেরত দিয়ে সেই সজীব পেল সততার পুরষ্কার অটোরিকশা

ভুল করে অটোরিকশার মধ্যে ৬১ লাখ টাকা ফেলে গিয়েছিলেন ‘বিকাশ’ এজেন্ট মালিক। সেই টাকা প্রকৃত মালিককে ফিরিয়ে দিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন অটোরিকশা চালক সজীব। এবার সজীবকে পুরস্কৃত করলেন ‘বিকাশ’ এজেন্ট মালিক।

বুধবার দুপুরে চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জাহেদ পারভেজ চৌধুরীর উপস্থিতিতে একটি নতুন অটোরিকশার চাবি সজীবের হাতে তুলে দেয়া হয়।

এ সময় চাঁদপুরে ‘বিকাশ’র পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল, সজীবের বাবা দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারসহ গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

চাঁদপুর শহরের পুরানবাজার আড়ত মিলের দিনমজুর দেলোয়ার সর্দারের তৃতীয় ছেলে সজীব অটোরিকশা পেয়ে বেশ খুশি। এতদিন ভাড়ায় নিয়ে অন্যের অটোরিকশা চালাত। এখন তা নিজের হওয়ায় ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান বিকাশ এজেন্ট মালিককে।

বিকাশের চাঁদপুর পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েল জানান, চালক সজীব সততার যেই পরিচয় দিয়েছে তার পুরস্কারস্বরূপ তাকে সচ্ছলভাবে জীবিকা নির্বাহ করতে একটি অটোরিকশা প্রদান করেন তিনি।

চাঁদপুর সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী সজীবের মতো প্রতিটি মানুষ সততার মধ্য দিয়ে দেশকে এগিয়ে নেবেন বলে প্রত্যাশা করেন। সজীবকে পুরস্কৃত করায় বিকাশ এজেন্টকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

গত রোববার চাঁদপুর একটি ব্যাংক থেকে ৬১ লাখ টাকা তুলে কর্মস্থলে ফেরার পথে বিকাশকর্মী মাসুদ ভুল করে অটোরিকশায় ফেলে যান। ওই দিনই ৭ ঘণ্টা পর চালক সজীব পুলিশের মাধ্যমে সেই টাকা প্রকৃত মালিক বিকাশ পরিবেশক আলমগীর আলম জুয়েলকে ফিরিয়ে দেয়।

এই নিয়ে তাৎক্ষণিক জেলা পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান ব্যক্তিগতভাবে চালক সজীবের সততার জন্য নগদ ৫ হাজার টাকা প্রদান করেন। চাঁদপুরের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সজীবকে খাদ্য সহায়তা ও ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

মন্তব্য

উপর