logo
Floating 2
Floating
শিরোনাম

সাতক্ষীরায় বিভিন্ন সময়ে চোরাইপথে আসা মাদকদ্রব্য ধ্বংস করছে ৩৩ বিজিবি


সাতক্ষীরায় বিভিন্ন সময়ে চোরাইপথে আসা মাদকদ্রব্য ধ্বংস করছে ৩৩ বিজিবি

সাতক্ষীরা বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে চোরাইপথে আসা ৪ কোটি ২৩ লাখ ৭৯ হাজার টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়েছে। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা শহরের অদ‚রে তালতলাস্থ ৩৩ বিজিবি ব্যাটেলিয়ন হেড কোয়ার্টারে বুলডোজার দিয়ে উক্ত মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়।
মাদক দ্রব্য ধ্বংস কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিজিবি খুলনা বিভিাগীয় সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল গোলাম মহিউদ্দীন খন্দকার।
 
এ সময় সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ আল-মাহমুদ, অতিরিক্ত পরিচালক (অপারেশন) মেজর মেজর রেজা আহমেদ, জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট মুর্শিদা খাতুন, পুলিশ সুপারের প্রতিনিধি অতিরিক্ত পুলিশ
সুপার (হেডকোয়ার্টার) ইকবাল হোসেন, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হুসেন, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর সাতক্ষীরা সার্কেল ফরিদ উদ্দীন সরকার প্রমুখ।

ধ্বংসকৃত মাদক দ্রব্যের মধ্যে রয়েছে, ১৪ হাজার ১৫৪ বোতল ফেন্সিডিল, ১ হাজার ১১৮ বোতল বিভিন্ন প্রকার মদ, ২৪৮ কেজি গাঁজা, ৬৪ হাজার ১৫৪ পিস ইয়াবা ও ২৯ হাজার ১২৫ পিস বিভিন্ন প্রকার নেশা জাতীয় ট্যাবলেট।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, গেল বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের ১০ জুলাই পর্যন্ত গত প্রায় ৯ মাসে ভারত থেকে চোরাই পথে অসা এ সব মালামাল সাতক্ষীরার বিভিন্ন সীমান্ত থেকে মালিক বিহীন অবস্থায় জব্দ করা হয়।

প্রধান অতিথি বিজিবি খুলনা সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল গোলাম মহিউদ্দীন খন্দকার বলেন, মাদক ও চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্তে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষনা করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, বর্তমানে করোনা ভাইরাসের ভারতীয়
ভ্যারিয়েন্ট সংক্রমন ঠেকাতে এবং মাদক ও চোচালান প্রতিরোধে সীমান্তে বিজিবির কঠোর নজরদারী জারী করা হয়েছে।

মন্তব্য

উপর